1. manobchitra@gmail.com : news :
  2. manobchitra24@gmail.com : News Bd : News Bd
May 19, 2024, 7:16 am
শিরোনাম
ইসরায়েলকে লক্ষ্য করে ৭৫টি রকেট ছুড়েছে লেবাননের শক্তিশালী সশস্ত্র গোষ্ঠী হিজবুল্লাহ কক্সবাজারের লাল পাহাড়ে আরসার আস্তানায় র‌্যাবের অভিযান রাজধানীতে ব্যাটারিচালিত রিকশা বন্ধের নির্দেশ দিয়েছেন সেতুমন্ত্রী শিগগিরই ফিলিস্তিনে খাদ্য সহায়তা পাঠাবে বাংলাদেশ: পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ প্রার্থিতা কেন বাতিল নয়, জানতে চেয়ে প্রতিমন্ত্রীর ভাইকে কমিশনে তলব  হুয়াওয়ের ক্লাউড সেবা ব্যবহার করবে অন্যরকম গ্রুপের অঙ্গ প্রতিষ্ঠান উৎকর্ষ সাতক্ষীরায় র‌্যাবের অভিযানে বিদেশি পিস্তল ও দেশীয় ওয়ান সুটারগান সহ গুলি উদ্ধার হত্যা মামলায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামী দীর্ঘ ২৭ বছর পলাতক থাকার পর র‌্যাবের হাতে গ্রেফতার দিনাজপুরের বিরামপুরে ২৯ বিজিবি’র অভিযানে বিপুল পরিমাণ কোকেন আটক গাজীপুরে এনএসআই পরিচয়ের ৬ জন ভূয়া সদস্য গ্রেফতার

ডিজিএফআইয়ের পরিচয়ে জাতীয় সাপ্তাহিক অপরাধ বিচিত্রার সম্পাদককে তুলে নিয়ে হত্যার হুমকি, থানায় জিডি

  • আপডেট সময় Saturday, December 23, 2023

নিজস্ব প্রতিনিধি : ডিজিএফআইয়ের পরিচয়ে জনৈক সালাম ২৩/১২/২০২৩ তারিখ, শনিবার, আনুমানিক বিকাল ৪.৩০ ঘটিকায় জাতীয় সাপ্তাহিক অপরাধ বিচিত্রার কার্যালয়ে এসে সম্পাদক ও প্রকাশক এসএম মোরশেদকে অফিসে এসে তুলে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়ে হত্যার হুমকি দিয়ে চলে যায় এবং বলে যে যদি তাদের সাথে উক্ত নিউজের বিষয়ে আপোষ-মিমাংসা না করে তাহলে প্রয়োজনে মোবাইল ট্রেকিং করে সম্পাদককে বাসা থেকে তুলে নিয়ে যাওয়া হবে এবং পত্রিকা বন্ধ করে দেয়াসহ আরো অশ্লিল গালিগালাজ করিয়া সাপ্তাহিক অপরাধ বিচিত্রা পত্রিকা অফিসের সকল সাংবাদিক ও কর্মচারীদের সামনে উগ্র আচরণ করতে থাকে ও ভয়ভীতি দেখিয়ে চলে যায়- যা  অফিসের সিসি টিভির ফুটেজে সংরক্ষিত রয়েছে।

যাওয়ার সময়ে সে কারো উদ্দেশ্যে মোবাইলে ফোন করে বলে, “স্যর টিম পাঠান, ওরে ধরে নিয়ে যাই”। পরে জাতীয় অপরাধ বিচিত্রার সম্পাদক আসরের নামাজের জন্য মসজিদের উদ্দেশ্যে রওনা হতে চাইলে উক্ত সালাম সম্পাদকের গতিরোধ করে বলে নামাজ পড়া লাগবে না বলে বাধা দেয়।

এই বিষয়ে সম্পাদক জানান, গত কিছুদিন যাবৎ উক্ত সালাম কখনো এনএসআইয়ের ইন্সপেক্টর, কখনো জাতীয় প্রেসক্লাবের সিনিয়র সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে মোবাইলে কল করে হুমকি ধামকি দিয়ে যাচ্ছে। এছাড়াও সালাম আমাকে বলে যে, সমস্ত ডকুমেন্টস নিয়ে তার সাথে জাতীয় প্রেসক্লাবে গিয়ে দেখা করতে হবে এবং এ ব্যাপারে তার সাথে আপোষ মিমাংসা করতে হবে।

সম্পাদক বলেন, উক্ত ব্যপারে আমি মতিঝিল থানায় শনিবার একটি জিডি করেছি, যার নং- ১৪৮১, তারিখ ২৩/১২/২৩ ইং। এছাড়াও আব্দুস সালাম গত ২১ ডিসেম্বর ২৩ ইং বৃহস্পতিবার বিকাল ৪.৪৫ সময় আমার অফিসে এসে অকথ্য ভাষায় গালমন্দ করে গিয়েছে।

সম্পাদক আরো বলেন, কোনো সংস্থার পরিচয়ে এসে কোনো ব্যাক্তি একটি পত্রিকা অফিসে এসে নিউজের বিষয়ে মা-বাবা তুলে গালিগালাজ করা, তুলে নিয়ে যাওয়া অফিসিয়াল কাজ কিনা সেটা জানতে চাই।

তিনি বলেন, সে যদি সত্যিই কোনো সংস্থার লোকও হয়ে থাকেন তবুও এইভাবে আচরণ করা সরকারি আইনের পরিপন্থী বলে মনে করছি।

সম্পাদক আরো জানান, ডিজিএফআই বা অত্র প্রতিষ্ঠানের কোনো কর্মকর্তার বিষয়ে কোনো সংবাদ আমার পত্রিকায় প্রকাশ করা হয় নাই। এরপরেও পূর্বের দিনের মতো আজও ২৩-১২-২০২৩ তারিখে আব্দুস সালাম নিজেকে ডিজিএফআই’র এসআই পরিচয় দিয়ে অফিসে প্রবেশ করে অকথ্য ভাষায় গালমন্দ করে শাসিয়ে যায়। অফিসের লোকজনকে উত্তেজিত ভাষায় বলতে থাকেন, সম্পাদক যদি আমার বসের সাথে দেখা না করে তাহলে তাকে তুলে নিয়ে যাব। সালামের সাথে থাকা অন্য একজন ব্যাক্তি নিজেকে কনস্টেবল পরিচয় দিয়ে আরও বেপরোয়া ভাষায় কথা বলতে থাকে। উক্ত সালামের বিষয়ে তার অন্যায় আচরণের জন্য যদিও ২১-১২-২০২৩ তারিখে মতিঝিল থানায় জিডি করা হয়েছে।

সম্পাদক এসএম মোরশেদ বলেন, কোনো নিউজের দ্বারা যদি কেও সংক্ষুব্দ হয় তাহলে প্রথমে সম্পাদক বরাবর প্রতিবাদ পাঠাতে হবে। সম্পাদক যদি মনে করেন প্রতিবাদ ছাপানো প্রয়োজন তাহলে তা ছাপাবেন। সংক্ষুব্দ ব্যক্তি যদি মনে করেন তিনি পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদ তার বিরুদ্ধে অন্যায়ভাবে খবর প্রকাশ হয়েছে তাহলে প্রেস কাউন্সিলের চেয়ারম্যান বরাবর অভিযোগ দায়ের করবেন। কিন্তু কোনো খবর প্রকাশ করলে সংক্ষুব্দ ব্যক্তি তার প্রতিনিধি পাঠিয়ে অফিসে অনাধিকারভাবে প্রবেশ করে ভয় ভীতি ও হুমকি ধামকি দিয়ে গালমন্দ ও সিনক্রিয়েট করে তাকে তুলে নেয়ার চেষ্টা করা কোনো আইনেই নেই।

সম্পাদক আরো বলেন, দুদিনের পুরো ঘটনা আমাদের সিসি টিভিতে ধারণ করা আছে। অভিযুক্ত এসআই পরিচয়দানকারী সালামকে জিজ্ঞেস করা হলে ডিজিএফআইর সিনিয়র অতিরিক্ত পরিচালকের নির্দেশে তিনি এখানে এসেছেন বলে জানান। তখন তাকে বলা হয়, অফিসিয়াল প্রসিডিউর অনুযায়ী কোনো তথ্য জানতে হলে দাপ্তরিক চিঠি প্রেরণ করলে, সকল প্রকার তথ্য সরবরাহ আমরা করব। এভাবে যদি একজন এসআই পরিচয় দানকারী কোনো একটি জাতীয় পত্রিকা অফিসে এসে সম্পাদককে অপমান করে সেটা কতটা যুক্তিযুক্ত তা জাতির কাছে প্রশ্ন?

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2021 ManobChitra
Theme Customized By BreakingNews